টাইফুন মাংখুটের আঘাতে ফিলিপাইনে নিহত ২৫

বাঙলার জাগরণ ডেস্ক : শক্তিশালী ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড় টাইফুন মাংখুট ফিলিপাইনে তাণ্ডব চালানোর পর এখন হংকং এবং চীনের দিকে ধেয়ে যাচ্ছে। টাইফুন মাংখুতের আঘাতের এখন পর্যন্ত ২৫ জন নিহত হয়েছেন।

এই ঘূর্ণিঝড়টি ঘণ্টায় ২২০ কিলোমিটার গতিতে হংকংয়ের দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব দিকে আঘাত করার করতে পারে বলে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে।

হংকং অবজারভেটরি জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়টি এখন প্রতি ঘণ্টায় ৩০ কিলোমিটার গতিতে চীনের গুয়াংডংয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূলের দিকে এগোচ্ছে।

ফিলিপাইনের উর্বর অঞ্চল হিসেবে পরিচিত কাগায়ান প্রদেশে ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার দিনগত রাত ১টা ৪০ মিনিটে ফিলিপিন্সের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় বাগগাওয়ে টাইফুন মাংখুট আঘাত হানে। স্থানীয়ভাবে ওমপং নামে পরিচিত এই ঘূর্ণিঝড়টি পরবর্তী ২০ ঘণ্টা ফিলিপিন্সে তাণ্ডব চালায়।

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তের রাজনৈতিক উপদেষ্টা ফ্রান্সিস তোলেন্তিনো বলেছেন, কৃষির প্রাণকেন্দ্র এই প্রদেশে ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে টাইফুন মাংখুট আঘাত হানার আশঙ্কায় ধান ও ভুট্টার মতো কিছু ফসল আগেই সংগ্রহ করা হয়েছিল। তবে এটি মোট উৎপাদিত কৃষি পণ্যের মাত্র পাঁচ ভাগের এক ভাগ।

বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা (ডব্লিউএমও) এই টাইফুনটিকে চলতি বছর এ পর্যন্ত আঘাত হানা ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড়গুলোর মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী বলে ঘোষণা করেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০১৩ সালে সুপার টাইফুন হাইয়ানের আঘাতে ফিলিপিন্সে ৭ হাজারের বেশি মানুষ মারা যায়। আর ক্ষতিগ্রস্ত হয় কয়েক লাখ মানুষ।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.