ড. ওয়াজেদ মিয়াকে স্মরণ করলো যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ

বাংলাদেশের বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার ১০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে পালকি পার্টি সেন্টারে মিলাদ মাহফিল ও স্মরণ সভার আয়োজন করেছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ স্মরণ সভায় বক্তারা ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়াকে একজন সৎ ও নির্মোহ ব্যক্তি হিসাবে আখ্যায়িত করে বলেন, ‘ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকার পরও তিনি কখনো ক্ষমতার অপব্যবহার করেননি। বরং তিনি দেশ ও মানুষের জন্য নিবেদিন প্রাণ হিসাবে কাজ করে গেছেন।’

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের সঞ্চালনায় এ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্ঠা ডা. মাসিদুল হাসান, সহ সভাপতি মাহবুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক আইরিন পারভিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দিন দেওয়ান, প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম, কোষাধ্যক্ষ আবুল মনসুর খান, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুজ্জামান , প্রবাসীকল্যাণ সম্পাদক সোলায়মান আলী, কার্য নির্বাহী সদস্য শাহানারা রহমান, সরাফ সরকার, নুরুল আফসার সেন্টু, আব্দুল হামিদ, আলী গজনবী, নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি একেএম আলমগীর, মুর্শিদা জামান, যুক্তরাস্ট্র যুবলীগ আহ্বায়ক তারেকুল হায়দার, সেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি দুরুদ মিয়া রণেল, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগের সভাপতি আজিজুল হক খোকন, যুবলীগ নেতা নান্টু মিয়া, আনিছুর রহমান প্রমুখ।

ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশ দেশ হিসাবে গড়তে হলে আমাদের প্রত্যেককে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার মত সৎ মানুষ হতে হবে।’

তিনি বলেন, দেশের জন্য বঙ্গবন্ধু পরিবারের যে আত্মত্যাগ, তা অনুসরণ করে আমাদের প্রত্যেকের উচিত সৎ জীবনযাপনের শপথ নেওয়া। মরহুমের বর্ণাঢ্য কর্মজীবনের ওপর আলোকপাত করে বলেন, ‘তার মত মহৎ প্রাণের মানুষের অভাব কখনোই পূরণ হবার নয়।’

আলোচনা সভার শেষে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। পরিচালনা করেন ইমাম সাইফুল ইসলাম সিদ্দিীক।